ফেনী    ১৮ই অক্টোবর, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ        দুপুর ১:০৭
‘বিশুদ্ধ আওয়ামী লীগার’ হিসেবে জাহির করতে শুরু করেছে ওরা: মোহাম্মদ হাসান।-সত্যের সন্ধানে নিউজ
তারিখ - ডিসেম্বর ১০, ২০২০ জেলার সংবাদ
এডিটর - সুমন পাটোয়ারী

  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

সবাই এখন আওয়ামী লীগ। আওয়ামী লীগ সাজতে রীতিমতো প্রতিযোগিতা চলছে। প্রায়ই সকল শ্রেণী পেশার মানুষের মধ্যে এ প্রবনতা দৃশ্যমান। বিশেষ করে বর্তমান ও সাবেক আমলা, শিক্ষক, চিকিৎসক, আইনজীবী কিংবা প্রকৌশলী— সবাই এখন নিজেদের গায়ে আওয়ামী লীগের “তকমা” লাগাতে স্বাচ্ছন্দ্যবোধ করছেন। পিছিয়ে নেই সাংস্কৃতিক কর্মী কিংবা সাংবাদিকরাও। প্রশাসনের তৃণমূল থেকে কেন্দ্র পর্যন্ত সব কর্মকর্তা-কর্মচারী এমনকি আইন প্রয়োগকারী সংস্থার সদস্যরাও নিজেদের এখন “বিশুদ্ধ আওয়ামী লীগার” হিসেবে জাহির করতে শুরু করেছেন। এখন আওয়ামী লীগের সুসময়। “এখন মুখ দেখে মুগের ডাল” রাজনীতি চলছে। মানে ব্যক্তি পছন্দের রাজনীতি। ব্যক্তির ইচ্ছায় কাজ হচ্ছে। এখন নীতি আদর্শ দলীয় রাজনীতির চেয়ে ভাই কেন্দ্রীক বলয়ে বন্দী রাজনীতি। বর্তমান ক্ষমতাসীন দল আওয়ামী লীগের রাজনীতি ভাই লীগে পরিণত হয়েছে। এমপিরা নিজ নিজ এলাকায় নিজস্ব বলয়ে বন্দী। সুযোগ সন্ধানীর ভীড় চারপাশে। এদের কুনইয়ের গুতোয় কোনঠাসা দলের ত্যাগী নেতাকর্মীরা। সুযোগ সন্ধানীরা দলের নাম ভাঙ্গিয়ে ফুলে ফেপে উঠেছে।কেউ কেউ পদ পদবীও বাগিয়েছে। বেড়েছে দলের মধ্যে অভ্যন্তরীণ কোন্দল। কোথাও কোথাও একে অপরকে সাইজ করতে তৎপর। পরিস্থিতি এমন অনেক নেতার মধ্যে মুখ দেখাদেখি নেই। এতে করে ভেতরে ভেতরে দল বিমুখ হচ্ছে সাধারণ নেতাকর্মী সমর্থকরা। দল আবারও কখনো দুঃসময়ে পড়লে এর চরম মূল্য দিতে হবে আওয়ামী লীগকেই। এখন আওয়ামী লীগ দীর্ঘ বছর ক্ষমতায় থাকায় সুবিধায় আছে। তাই তৃণমূল থেকে প্রশাসনের সর্বত্র আওয়ামী লীগ হওয়ার অতি উৎসাহীর সংখ্যা বৃদ্ধি পাচ্ছে। দল বেকায়দায় পড়লে এসব আওয়ামী লীগারকে খুঁজে পাওয়া যাবে না। এখনই সময়, নব্য আওয়ামী লীগারদের লাগাম টেনে ধরার। রাজনীতির উদ্ভব মানবসভ্যতার বিকাশের সাথে সাথে রাজার রাজতান্ত্রিক চিন্তাধারার মধ্যে দিয়ে ঘটেছে এবং পরিপূর্ণতাও লাভ করেছে। রাজতান্ত্রিক চিন্তাধারা এবং রাজনৈতিক কলা-কৌশল ও পরবর্তীকালের আধুনিক রাজনীতির শ্রেণিবিন্যাস রাষ্ট্রবিজ্ঞানমূলক চিন্তাধারার উত্থান ঘটিয়েছে। যার পরিশীলিত রূপই হচ্ছে আজকের আধুনিক গণতন্ত্র। মেকিয়াভেলি রচিত ‘The Prince’ গ্রন্থটি রাজতন্ত্রের চরিত্র ও স্থায়িত্ব নিয়ে একটি প্রাণবন্ত বিশ্লেষণ করেছে। এককথায় রাজনীতি হলো বিশেষ রাজত্বকেন্দ্রিক নীতি বা রাজার নীতি। কেউ কেউ রাজনীতিকে ‘নীতির রাজা’ বলেও উল্লেখ করেছেন। অর্থাৎ সব নীতির সেরা নীতিই হচ্ছে ‘রাজনীতি’। তাই রাজনীতি ও সভ্যতা শুধু পরস্পর সম্পর্কযুক্তই নয় বরং একে অপরের পরিপূরকও বটে। তাই রাজনীতি মানবকল্যাণের কোনো অনুষঙ্গকেই উপেক্ষা করতে পারে না। রাজনীতির প্রধান অনুসঙ্গ হলো রাজনৈতিক দল বা শক্তি। আর রাজনৈতিক দল হচ্ছে নাগরিকদের এমন একটি সঙ্ঘবদ্ধ জনগোষ্ঠী যারা নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বিতার মাধ্যমে বিজয় অর্জন ও সরকার গঠন করার বিষয়ে অঙ্গীকারবদ্ধ। রাজনৈতিক দল সমষ্টিগত কল্যাণ কিংবা সমর্থকদের চাহিদা অনুযায়ী কিছু প্রস্তাবিত নীতি ও কর্মসূচির ভিত্তিতে ঐকমত্য পোষণ করে এবং সেই অভীষ্ট লক্ষ্যে পৌঁছার জন্য প্রাণান্তকর প্রচেষ্টা চালায়। প্রায় একযুগ রাষ্ট্রীয় ক্ষমতায় থাকা আওয়ামী লীগে অভ্যন্তরীণ দ্বন্দ্ব, গ্রুপিং, ক্ষমতার লোভ এবং দায়িত্বশীল নেতাদের বিতর্কিত কর্মকাণ্ডে দিন দিন অতিষ্ঠ হয়ে উঠছে দলটি তৃণমূলের রাজনীতি। স্থানীয় প্রভাবশালী নেতা ও অধিকাংশ এমপি-মন্ত্রীর বলয়-ভিত্তিক রাজনীতির কারণে প্রায়ই ঘটছে সংঘর্ষ, হামলা, ধাওয়া-পাল্টা ধাওয়ার ঘটনা। একের পর এক মামলার শিকার হচ্ছেন দলের নেতা-কর্মীরা। বর্তমান রাজনীতিতে আওয়ামী লীগের সুসময়। এদিকে দলটির দক্ষ নেতৃত্বে মাঠের আন্দোলন সংগ্রামে নিষ্ক্রিয় বিরোধী রাজনৈতিক দলগুলো। অন্যদিকে দেশের অভ্যন্তরে সৃষ্ট ইস্যুগুলো দূরদর্শিতার সাথে মোকাবিলা করে রাষ্ট্রপরিচালনায় সফল। তাই রাজনীতির এই সুসময়কে শক্তিশালী তৃণমূল গঠনে কাজে লাগাতে চান আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় দায়িত্বপ্রাপ্তরা। বিশেষ করে দলে অনুপ্রবেশকারী ও বিতর্কিতদের ছেঁটে ফেলা, অভ্যন্তরে বলয়ভিত্তিক রাজনীতি ভাঙা, ভাই লীগ, এমপি লীগ নিশ্চিহ্ন করা এবং সম্মেলনের মধ্য দিয়ে ত্যাগী, পরিশ্রমী এবং পরীক্ষিত নেতাদের সমন্বয়ে নতুন ও শক্তিশালী তৃণমূল গঠন করতে চান তারা। এ জন্য বন্ধ থাকা মেয়াদোত্তীর্ণ জেলা-উপজেলার সম্মেলন আগামী নভেম্বর থেকে শুরু করতে যাচ্ছে ক্ষমতাসীন দলটি। এক্ষেত্রে দীর্ঘদিন থেকে একটি বিষয় লক্ষনীয় যে, আওয়ামী লীগ, অঙ্গ ও সহযোগী সংগঠনগুলোর সম্মেলন হলে সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক এর নাম ঘোষণা করা হয়। আর ঘোষিত সভাপতি সম্পাদক কে বলা হয় সাংগঠনিক নিয়মে বসে পূর্ণাঙ্গ জীবনী গঠন করতে। কিন্তু প্রায়ই কোন সাংগঠনিক নিয়ম নীতির তোয়াক্কা না করে ঘোষিত সভাপতি সম্পাদক নিজেদের পছন্দের লোক দিয়ে কমিটি পূর্ণাঙ্গ করেন। এরফলে তৈরী হয় বলয়। প্রসঙ্গত বছর দেড়েক আগে চট্টগ্রামের একটি উপজেলা আওয়ামী লীগের সম্মেলনে সভাপতি সম্পাদক এর নাম ঘোষণা করা হয়। আর ঐ সম্মেলনে ঐ উপজেলা আওয়ামী লীগের সদ্যবিদায়ী সভাপতি জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক নির্বাচিত হন। এখন উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি সাধারণ সম্পাদক যখন পূর্ণাঙ্গ কমিটি গঠন করেন তখন ঐ সদ্য বিদায়ী উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি বর্তমান জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এর নিজ ইউনিয়ন থেকে কয়েকজন কে রাখা হলেও ঐ নেতার সাথে পরামর্শ বিনিময়ও করেননি। যা একদিকে সাংগঠনিক নিয়ম, রাজনৈতিক শিষ্টাচার বহির্ভূত অন্যদিকে বলয় সৃষ্টির অশুভ তৎপরতা।অপরদিকে এসব পূর্ণাঙ্গ কমিটি গঠনে পদবাণিজ্যের অভিযোগ ওঠে। এভাবেই সারাদেশে সাংগঠনিক নিয়ম ভুলে অপরাজনীতি চর্চার মধ্য দিয়ে বলয় সৃষ্টি ও ভাই লীগে ভরে উঠছে। সুবিধাবাদী ও অনুপ্রেবেশকারীরা একটি সিন্ডিকেট তৈরি করেছে। এই সিন্ডিকেট ভেঙে দিতে পারলে তৃণমূল পর্যায়ে আওয়ামী লীগকে আরও শক্তিশালী হবে। যারা দলীয় পদের অপব্যবহার করে অপরাজনীতির সাথে যুক্ত তাদের কোনোভাবেই ছাড় দেয়া উচিত হবে না। দল ও দলের ত্যাগী পরিশ্রমী নেতা-কর্মীদের স্বার্থে এদের ছেঁটে ফেলা উচিত। ব্যক্তিস্বার্থ হাসিলের জন্য কেউ কেউ জামায়াত-বিএনপি ও অন্যান্য দলথেকে এসে আওয়ামী লীগে অনুপ্রবেশ করে দল ও সরকারের সুনাম নষ্ট করছে। এ ধরনের অনুপ্রবেশকারীদেরও চিহ্নিত করে বের করে দেয়া শ্রেয়। আওয়ামী লীগ নীতিনির্ধারকগণ যদি সকল স্তরের সম্মেলনে শুধু মাত্র সভাপতি সাধারণ সম্পাদক বা আংশিক কমিটি ঘোষণা না করে পূর্ণাঙ্গ কমিটি গঠন করে দেন তাহলে হয়তো পদবাণিজ্য, বলয় সৃষ্টি হ্রাস পাবে। আওয়ামী লীগের অনেক নেতা আছে, সাধারণ মানুষের কাছে তাদের গ্রহণযোগ্যতা আছে। তাদের বিরুদ্ধে কোনো অপকর্মের অভিযোগ নেই। তাঁদের মূল্যায়ন করা হলে দলের ভীত মজবুত হবে।
লেখকঃ মোহাম্মদ হাসান, সাংবাদিক ও কলামিস্ট।

আপনার মন্তব্য লিখুন
  •   ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচন রূপগঞ্জে আওয়ামীলীগের মনোনীত পাঁচ চেয়ারম্যান প্রার্থীর মনোয়নপত্র দাখিল
  •   দুর্নীতির কবল থেকে নর্থ সাউথ বিশ্ববিদ্যালয়কে রক্ষার দাবি
  •   পরশুরামে বাবা-মাকে মারধর করার অভিযোগে মাদকাসক্ত ছেলেকে ছয় মাসের কারাদণ্ড
  •   সোনাগাজীতে বিভিন্ন পূজা মন্দির পরিদর্শন করলেন মাসুদ উদ্দিন চৌধুরী এমপি
  •   চরদরবেশ ইউপি নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদে আলোচনায় – নাজমুল হক জাহাঙ্গীর
  •   রূপগঞ্জে পূজা মন্ডপ পরিদর্শন করলেন গোলাম মর্তুজা পাপ্পা
  •   রূপগঞ্জে অপহরন চক্রের ৫ সদস্য গ্রেফতার
  •   ইহকালীন কল্যান ও পরকালীন মুক্তির জন্য পরিপূর্ণভাবে দ্বীনের অনুসরণ করুন।
  •   পরশুরামের কৃতিসন্তান ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জের সাবেক চেয়ারম্যান রকিবুর রহমান গুরুতর অসুস্থ
  •   পরশুরামে সনাতন ধর্মাবলম্বীদের দুর্গাপূজা উপলক্ষে ৭টি পূজা মন্ডপে পৌর মেয়রের আর্থিক অনুদান
  •   পরশুরামে উপজেলা যুবদলের পরিচিতি ও মতবিনিময় সভা
  •   পরশুরামে বিদেশীমদসহ এক ব্যবসায়ীকে আটক করেছে পুলিশ
  •   দাগনভূঞা বারাহিগুনী দরবার শরীফের মাদরাসা ভাংচুর ও জায়গা দখল
  •   কাদের মির্জা অনুসারী ১৪ মামলার আসামি ছাত্রলীগ নেতা গ্রেফতার
  •   রূপগঞ্জে ডিকেএমসি হাসপাতালের সায়েন্টিফিক সেমিনার
  •   নোয়াখালীতে গান্ধী মেমোরিয়াল মিউজিয়ামের শুভ উদ্ধোধন করলেন-আইনমন্ত্রী
  •   পরশুরামের চিথলিয়া ইউনিয়নে একই দোকানে তৃতীয়বার চুরি; খোয়া গেল ৬৩ হাজার টাকা ও মালামাল
  •   যেনে নিন ফেনী জেলার তথ্য। শেয়ার করে নিজের টাইমলাইনে রেখে দিন
  •   পরশুরামে বিদেশীমদসহ এক মাদক ব্যবসায়ীকে আটক করেছে পুলিশ
  •   ওসি জহিরুল ইসলামের সুযোগ্য নেতৃত্বে বিপুল মাদকসহ দুই মাদক ব্যবসায়ী গ্রেফতার











  • উপদেষ্টা : দিদারুল কবির রতন
    পৃষ্টপোষক : জসিম উদ্দিন লিটন
    ব্যবস্থাপনা পরিচালক : ফারুক আহমেদ সুমন
    সহ ব্যবস্থাপনা পরিচালক: মো: শাহ আলম
    সম্পাদক ও প্রকাশক : সুমন পাটোয়ারী
    অফিস : লিটন ব্রাদার্স ফাজিলের ঘাট-রোড দাগনভূঞা, ফেনী
    ফোন: 01816284600


    জসিম উদ্দিন লিটন
    সম্পাদক ও প্রকাশক

    সুমন পাটোয়ারী
    নির্বাহী সম্পাদক ও এডিটর


    বি:দ্রি:-উক্ত অনলাইন পোর্টালটির সকল পেপার্সের কার্যাদি প্রক্রিয়াধীন আছে।
    © 2021. sottersondhanenews.com All Right Reserved.
    Developed By   AS Shuvo
    উপরে যান