আজ জাতীয় গণহত্যা দিবস । – সত্যের সন্ধানে
  ফেনী    ২৭শে জুন, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ        সকাল ১১:৪৩
  •   মেনু নির্বাচন করুন
  •   বাংলাদেশ
  •   রাজনীতি
  •   বাণিজ্য
  •   আন্তর্জাতিক
  •   খেলা
  •   বিনোদন
  •   লাইফস্টাইল
  •   জীবনযাপন
  •   ফিচার ক্রোড়পত্র
  •   শিক্ষা
  •   ধর্ম
  •   ছবি
  •   ভিডিও
  •   চাকরি
  •   মতামত
  •   করোনাভাইরাস
  •   ই পেপার
  •   জাতীয়
  •   রাজনীতি
  •   অর্থনীতি
  •   জেলার সংবাদ
  •   অপরাধ
  •   রাজধানী
  •   আমেরিকা
  •   ভারত
  •   পাকিস্তান
  •   এশিয়া
  •   ইউরোপ
  •   আরব
  •   অন্যান্য
  •   ক্রিকেট
  •   ফুটবল
  •   অন্যান্য খেলা
  •   সংস্কৃতি
  •   অন্যান্য
  •   সাক্ষাৎকার
  •   সম্পাদকীয়
  •   বিতর্ক
  •   সমাজ
  •   বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি
  •   দর্ষণ
  •   কৃষি
  •   নির্বাচন
  •   জাতীয়
  •   জেলা সংবাদ
  •   দুর্ঘটনা
  •   রূপগঞ্জে
  •   সন্ধান চেয়ে
  •   ঠাকুরগাঁওয়ে
  •   ফুলগাজী
  •   নারায়ণগঞ্জ
  •   ভারতে পাচার
  •   পাটগ্রাম বুড়িমারী লালমনিরহাট
  •   উঠান বৈঠক
  •   সেনবাগ
  •   ইউনিয়ন অব হিউম্যানিটি ফাউন্ডেশন
  •   ফেণী
  •   নোয়াখলী
  •   COVID-19
  •   হত্যা
  •   জয়নাল আবেদিন হাজারী
  • আজ জাতীয় গণহত্যা দিবস ।-সত্যের সন্ধানে নিউজ
    তারিখ - মার্চ ২৪, ২০২১ জেলা সংবাদ
    এডিটর - সুমন পাটোয়ারী

    মোহাম্মদ হাসানঃ ভয়াল ২৫ মার্চ। জাতীয় গণহত্যা দিবস আজ । ২০১৭ সালের ১১ মার্চ জাতীয় সংসদে ২৫ মার্চ জাতীয় গণহত্যা দিবস পালনের প্রস্তাব সর্বসম্মতভাবে গৃহীত হওয়ার পর থেকেই দিনটি জাতীয় গণহত্যা দিবস হিসেবে পালিত হয়ে আসছে। একাত্তর সালের এইদিনে বাঙালি জাতির জীবনে এক বিভিষিকাময় রাত নেমে আসে। মধ্যরাতে বর্বর পাকিস্তানি হানানদার বাহিনী কাপুরুষের মত তাদের পূর্ব পরিকল্পিত অপারেশন সার্চলাইটের নীলনকসা অনুযায়ী আন্দোলনরত বাঙালিদের কণ্ঠ চিরতরে স্তব্ধ করে দেওয়ার ঘৃণ্য লক্ষ্যে রাজধানী ঢাকাসহ সারাদেশে নিরস্ত্র বাঙালিদের ওপর অত্যাধুনিক অস্ত্রে সজ্জিত হয়ে ঝাঁপিয়ে পড়ে। ২৫ মার্চের গণহত্যা শুধু এক রাতের হত্যাকান্ডই ছিল না, এটা ছিল মূলতঃ বিশ্ব সভ্যতার জন্য এক কলংকজনক জঘন্যতম গণহত্যার সূচনা মাত্র। অস্ট্রেলিয়ার ‘সিডনি মর্নিং হেরাল্ড’ পত্রিকার ভাষ্য মতে, শুধুমাত্র পঁচিশে মার্চ রাতেই বাংলাদেশে প্রায় এক লক্ষ মানুষকে হত্যা করা হয়েছিল, যা গণহত্যার ইতিহাসে এক জঘন্যতম ভয়াবহ ঘটনা। পরবর্তী নয় মাসে একটি জাতিকে নিশ্চিহ্ন করে দেওয়ার লক্ষ্যে ৩০ লাখ নিরপরাধ নারী-পুরুষ-শিশুকে হত্যার মধ্য দিয়ে পাকিস্তানি হানাদার বাহিনী ও তাদের দোসররা পূর্ণতা দিয়েছিল সেই বর্বর ইতিহাসকে। তাদের সংঘটিত গণহত্যা, ধর্ষণ, লুন্ঠন, অগ্নিসংযোগ সবই ১৯৪৮ সালের ১১ ডিসেম্বর জাতিসংঘ কর্তৃক গৃহীত ‘জেনোসাইড কনভেনশন’ শীর্ষক ঐতিহাসিক সিদ্ধান্তে বর্ণিত সংজ্ঞায় গণহত্যার চূড়ান্ত উদাহরণ। মার্কিন সাংবাদিক রবার্ট পেইন ২৫ মার্চ রাত সম্পর্কে লিখেছেন, ‘ঢাকায় ঘটনার শুরু মাত্র হয়েছিল। সমস্ত পূর্ব পাকিস্তান জুড়ে সৈন্যরা বাড়িয়ে চললো মৃতের সংখ্যা। জ্বালাতে শুরু করলো ঘর-বাড়ি, দোকান-পাট লুট আর ধ্বংস তাদের নেশায় পরিণত হলো যেন। রাস্তায় রাস্তায় পড়ে থাকা মৃতদেহগুলো কাক-শেয়ালের খাবারে পরিনত হলো। বাংলাদেশ হয়ে উঠলো শকুন তাড়িত শ্মশান ভূমি।’ এই গণহত্যার স্বীকৃতি খোদ পাকিস্তান সরকার প্রকাশিত দলিলেও রয়েছে। পূর্ব পাকিস্তনের সঙ্কট সম্পর্কে যে শ্বেতপত্র পাকিস্তানী সরকার মুক্তিযুদ্ধ চলাকালে প্রকাশ করেছিল, তাতে বলা হয়: ‘১৯৭১ সালের পয়লা মার্চ থেকে ২৫ মার্চ রাত পর্যন্ত এক লাখেরও বেশী মানুষের জীবননাশ হয়েছিল।’ ১৯৭০-এর সাধারণ নির্বাচনে সংখ্যাগরিষ্ঠ ভোটে জয়লাভ করা সত্ত্বেও আওয়ামী লীগের কাছে পাকিস্তানী জান্তা ক্ষমতা হস্তান্তর না করার ফলে সৃষ্ট রাজনৈতিক অচলাবস্থা নিরসনের প্রক্রিয়া চলাকালে পাকিস্তানী সেনারা কুখ্যাত ‘অপারেশন সার্চলাইট’ নাম দিয়ে নিরীহ বাঙালী বেসামরিক লোকজনের ওপর গণহত্যা শুরু করে। তাদের এ অভিযানের মূল লক্ষ্য ছিল আওয়ামী লীগসহ তৎকালীন পূর্ব পাকিস্তানের প্রগতিশীল রাজনৈতিক নেতা-কর্মীসহ সকল সচেতন নাগরিককে নির্বিচারে হত্যা করা। ২৫ মার্চ দুপুরের পর থেকেই ঢাকাসহ সারাদেশে থমথমে অবস্থা বিরাজ করতে থাকে। এদিন সকাল থেকেই সেনা কর্মকর্তাদের তৎপরতা ছিল চোখে পড়ার মত। হেলিকপ্টার যোগে তারা দেশের বিভিন্ন সেনানিবাস পরিদর্শন করে বিকেলের মধ্যে ঢাকা সেনানিবাসে ফিরে আসে। ঢাকার ইপিআর সদর দফতর পিলখানাতে অবস্থানরত ২২তম বালুচ রেজিমেন্টকে পিলখানার বিভিন্ন স্থানে অবস্থান নিতে দেখা যায়। এদিন মধ্যরাতে পিলখানা, রাজারবাগ, নীলক্ষেত আক্রমণ করে পাকিস্তানী সেনারা। হানাদার বাহিনী ট্যাঙ্ক ও মর্টারের মাধ্যমে নীলক্ষেতসহ বিশ্ববিদ্যালয় এলাকা দখল নেয়। সেনাবাহিনীর মেশিনগানের গুলিতে, ট্যাঙ্ক-মর্টারের গোলায় ও আগুনের লেলিহান শিখায় নগরীর রাত হয়ে উঠে বিভীষিকাময়। পাকিস্তানি হায়েনাদের কাছ থেকে রক্ষা পায়নি রোকেয়া হলের ছাত্রীরাও। ড. গোবিন্দ চন্দ্র দেব ও জ্যোতির্ময় গুহ ঠাকুরতা, অধ্যাপক সন্তোষ ভট্টাচার্য, ড. মনিরুজ্জামানসহ বিশ্ববিদ্যালয়ের বিভিন্ন বিভাগের ৯ জন শিক্ষককে নিষ্ঠুরভাবে হত্যা করা হয়। ঢাবির জগন্নাথ হলে চলে নৃশংসতম হত্যার সবচেয়ে বড় ঘটনাটি। এখানে হত্যাযজ্ঞ চলে রাত থেকে সকাল পর্যন্ত। প্রেসিডেন্ট ইয়াহিয়া খান অপারেশন সার্চ লাইট পরিকল্পনা বাস্তবায়নের সকল পদক্ষেপ চুড়ান্ত করে গোপনে ঢাকা ত্যাগ করে করাচি চলে যান। সেনা অভিযানের শুরুতেই হানাদার বাহিনী বাঙালী জাতির অবিসংবাদিত নেতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানকে তার ধানমন্ডির বাসভবন থেকে গ্রেফতার করে। গ্রেফতারের আগে বঙ্গবন্ধু বাংলাদেশের স্বাধীনতা ঘোষণা করেন এবং শেষ শত্রু বিদায় না হওয়া পর্যন্ত যুদ্ধ চালিয়ে যাবার আহ্বান জানান। বঙ্গবন্ধুর এই আহবানে সাড়া দিয়ে বাঙালি পাকিস্তানি হানাদার বাহিনীর বিরুদ্ধে যুদ্ধে ঝাঁপিয়ে পড়ে এবং দীর্ঘ ৯ মাস সশস্ত্র লড়াই শেষে একাত্তরের ১৬ ডিসেম্বর পূর্ণ বিজয় অর্জন করে। বিশ্বের মানচিত্রে অভ্যুদয় ঘটে নতুন রাষ্ট্র বাংলাদেশের।

    আপনার মন্তব্য লিখুন
  •   শিশু আফরা হত্যার দায় স্বীকার করে
    আদালতে ঘাতকের জবানবন্দি
  •   রূপগঞ্জে গৃহবধূর বাড়িতে হামলা ভাংচুর লুটপাট ॥ শ্লীলতাহানী
  •   সেতু মন্ত্রী’র নির্বাচনীয় এলাকা কবিরহাট উপজেলায় পদ্মা সেতুর উদ্বোধন উপলক্ষে আনন্দ র‌্যালি ও আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত
  •   স্বামী ও দুই সন্তান রেখে পরকীয়া প্রেমিকের ঘরে মৌসুমী! বিয়ে না করলে আত্মহত্যার হুমকী
  •   ফেনীর দাগনভূঁঞায় ৬ বছরের এক শিশু শিক্ষার্থীকে ধর্ষণের পর ফাঁস দিয়ে হত্যার অভিযোগ
  •   পদ্মা সেতু উদ্বোধনে
    রূপগঞ্জে আনন্দ উৎসব
    সভা ॥ শোভাযাত্রা
  •   সোনাগাজী স্বেচ্ছায় রক্তদান ফাউন্ডেশন’র কমিটি গঠন,
  •   সোনাগাজী মোশারফ হোসেন উচ্চ বিদ্যালয়ে শিক্ষার্থীদের বিক্ষোভ
  •   ফেনীতে করোনা সংক্রমন রোধে জেলা প্রশাসনের মাস্ক বিতরণ
  •   ২৮ জুন থেকে ১৯ দিনের লম্বা ছুটিতে প্রাথমিক বিদ্যালয়
  •   পদ্মা সেতুর শুভ উদ্ভোদন উপলক্ষে আলোকসজ্জায় সজ্জিত ধানশালিক ইউনিয়ন পরিষদ কার্যালয়।
  •   ৪৮ লক্ষ টাকার ত্রাণসামগ্রী নিয়ে বানভাসি সিলেটের পথে বেওয়ারিশ সেবা ফাউন্ডেশন।
  •   রূপগঞ্জের মারহাবা এগ্রোতে
    হাজার কেজির ‘কালা চাঁদ’
  •   প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা আমাদের পদ্মা সেতু উপহার দিয়েছেন; মন্ত্রী গাজী
  •   স্টুডেন্টস অ্যাসোসিয়েশন অফ বাউরা কমিটির পূর্ণাঙ্গ অনুমোদন ঘোষণা
  •   রায়গঞ্জে বাংলাদেশ আঃলীগের ৭৩তম প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী পালিত
  •   রায়গঞ্জে বাংলাদেশ আঃলীগের ৭৩তম প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী পালিত
  •   চিলমারীতে পুকুরের পানিতে ডুবে এক যুবকের মৃত্যু।
  •   লালমনিরহাটে পুলিশ জাদুঘর উদ্বোধন করলেন পুলিশ আইজিপি
  •   আমরা এসেছি আপনাদের জন্য মানবিক উপহার নিয়ে- ফেনীর পুলিশ সুপার আবদুল্লাহ আল মামুন











  • উপদেষ্টা : দিদারুল কবির রতন
    পৃষ্টপোষক : জসিম উদ্দিন লিটন
    ব্যবস্থাপনা পরিচালক : ফারুক আহমেদ সুমন
    সহ ব্যবস্থাপনা পরিচালক: মো: শাহ আলম
    সম্পাদক ও প্রকাশক : সুমন পাটোয়ারী
    অফিস : লিটন ব্রাদার্স ফাজিলের ঘাট-রোড দাগনভূঞা, ফেনী
    ফোন: 01816284600


    জসিম উদ্দিন লিটন
    উপদেষ্টা

    সুমন পাটোয়ারী
    সম্পাদক ও প্রকাশক


    বি:দ্রি:-উক্ত অনলাইন পোর্টালটির সকল পেপার্সের কার্যাদি প্রক্রিয়াধীন আছে।
    © 2021. sottersondhanenews.com All Right Reserved.
    Developed By   SoftwareFarm BD
    উপরে যান